সৌদির বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা

সৌদি আরবের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় আবহা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা ড্রোন হামলা চালিয়েছে।
 
শুক্রবার সন্ধ্যায় বিমানবন্দরের স্পর্শকাতর জায়গাগুলোতে ড্রোন হামলা হয় বলে হুতিদের মুখপাত্র ইয়াহিয়া সারিয়ি দাবি করেছেন।  

ইয়েমেন সীমান্ত থেকে ২০০ কিলোমিটার উত্তরের আবহা বিমানবন্দর থেকে সৌদি আরবের অভ্যন্তরীণ ও আঞ্চলিক রুটগুলোতে বিমান চলাচল করে।  এ বিমানবন্দরটি দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থিত।

হুতি বাহিনীর দাবি, হামলায় কাসেফ- টু কে ড্রোন ব্যবহার করা হয় এবং সেগুলো অত্যন্ত নিখুঁতভাবে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানে।

ইয়াহিয়া সারিয়ি বলেন, সৌদি আরব গত ছয় বছর ধরে ইয়েমেনের উপর যে আগ্রাসন চালিয়ে আসছে তার জবাবে ইয়েমেনের পক্ষ থেকে চালানো এই হামলা সম্পূর্ণ বৈধ, ইয়েমেনিরা এমন হামলা চালানোর অধিকার রাখে।

ইরানি মদদপুষ্ট হুতি বিদ্রোহীরা ২০১৪ সালে ইয়েমেনের রাজধানী সানা দখল করার পর দেশটির সৌদি সমর্থিত প্রেসিডেন্ট আব্দে রাব্বি মানসুর হাদিকে ক্ষমতাচ্যুত করে। পরে আব্দে রাব্বি মানসুর দেশ ছেড়ে পালিয়ে সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে চলে যান।

এরপর ইয়েমেনের গৃহযুদ্ধে হস্তক্ষেপ করে সৌদি সামরিক জোট। জাতিসংঘ জানায়, গত চার বছর ধরে চলা এ যুদ্ধে অন্তত ছয় হাজার ৮০০ বেসামরিক লোক নিহত ও সাড়ে ১০ হাজারেরও বেশি আহত হয়েছেন।

মাঝেমধ্যেই সৌদি শহরগুলোতে একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা করে ইরানের মিত্র হুতিরা।