প্রতিবন্ধী রিকশাচালক রোজিনাকে নিয়ে ‘বিজয়ীনি’

বিশ্বময় নারী সামাজিক ও ধর্মীয় অপশাসনে অবরোধবাসিনী হয়ে দাঁড়িয়েছে। পুরুষশাসিত সমাজে নারীকে অবরুদ্ধ রাখা হয়েছে নানাভাবে। এরপরও যুগে যুগে নারী তার আগল ভেঙে বের হয়ে আসতে চেষ্টা করেছে। 

নারীরাও এখন পুরুষের সমকক্ষ, নারী আজ তা প্রমাণ করেছে। প্রমাণিত হয়ছে বেগম রোকেয়ার সেই বিখ্যাত বাণী, যাহা যাহা পুরুষ পারিবে, তাহা তাহা নারীও পারিবে।

‘বিজয়ীনি’ অনুষ্ঠানটি সাজানো হয়েছে শারীরিক প্রতিবন্ধী হওয়া সত্ত্বেও রিকশা চালিয়ে সংসারের হাল ধরা রোজিনাকে নিয়ে। 

অনুষ্ঠানে দেখা যাবে সেরিব্রাল পালসিতে আক্রান্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র হৃদয় সরকারকে নিয়ে যুদ্ধের জন্য বিশ্বের ১০০ অনুপ্রেরণাদায়ী মায়ের তালিকায় আসন করে নেয়া হৃদয়ের মা সীমা সরকারকে। 

থাকছেন আরও একজন অদম্য নারী আতিকা রোমা। যিনি গণপরিবহনে নারীর প্রতি হয়রানি রোধে নারীদেরকে স্কুটি প্রশিক্ষণ দিয়ে নারীর চলার পথকে নিরাপদ করেছেন। 

ফেরদৌসী আহমেদ চৌধুরী লিপির উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেছেন কুইন রহমান। আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে বিশেষ অনুষ্ঠান ‘বিজয়ীনি’ প্রচার হবে ৮ মার্চ সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে এটিএন বাংলায়।