নারকীয় হত্যাযজ্ঞের দিনে মিয়ানমারের জেনারেলদের জমকালো পার্টি!

মিয়ানমারে গত শনিবার সেনাবাহিনীর গুলিতে শতাধিক বিক্ষোভকারী নিহত হন। নারকীয় হত্যাযজ্ঞের ওইদিনই জমকালো এক পার্টিতে আনন্দে মেতে ওঠেন দেশটির জেনারেলরা। 

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে জাপানি দখলদার বাহিনীর বিরুদ্ধে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর প্রতিরোধের ৭৬তম বার্ষিকী ছিল গত শনিবার (২৭ মার্চ)। 

এ দিন কোনো ধরনের বিক্ষোভ-প্রতিবাদ না করার জন্য দেশটির সামরিক সরকার নির্দেশনা জারি করেছিল। কিন্তু সেদিন মিয়ানমারজুড়েই ব্যাপক বিক্ষোভ হয় এবং সেনাবাহিনী ও পুলিশ নির্বিচার গুলিবর্ষণ করে। এ দিনে ১১৪ জন বিক্ষোভকারী নিহত হন। 

সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষ্যে ওইদিন কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানের পর সন্ধ্যায় জমালো পার্টির আয়োজন করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। পার্টিতে আনন্দে মেতেছিলেন দেশটির জান্তা সরকারের প্রধান মিন অং হ্লাইং ও ঊর্ধ্বতন সেনা কর্মকর্তারা। 

এ ঘটনায় বিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড় বইছে। সেনাবাহিনীর এ জমকালো পার্টির ছবিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।  

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মিয়ানমারের সরকারি টিভির শেয়ার করা ছবিতে দেখা গেছে, মিন অং হ্লাইং সাদা রঙের ইউনিফর্ম পরে আছেন। গলায় টাই বাঁধা। লালগালিচায় তাকে হাঁটতে দেখা গেছে। তার মুখে ছিল হাসি। নৈশভোজের জন্য সবার সঙ্গে বড় একটি টেবিলে বসেছিলেন তিনি।

প্রসঙ্গত মিয়ানমারে গত নভেম্বরের নির্বাচনে অং সান সু চির ক্ষমতাসীন দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) বিপুল জয় পায়। কিন্তু নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ তোলে সেনাবাহিনী। তারা পার্লামেন্টের প্রথম অধিবেশন শুরুর কয়েক ঘণ্টা আগে ১ ফেব্রুয়ারি ভোরে সামরিক অভ্যুত্থান করে।

এদিন সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইংয়ের নেতৃত্বাধীন সেনাবাহিনী সু চির সরকারকে উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করে। সেনাবাহিনী সু চি ও প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টসহ রাজনৈতিক নেতাদের গ্রেফতার করে। জান্তা শাসকদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দিন দিন জোরালো হচ্ছে। সঙ্গে দমনপীড়নও জোরদার করছে নিরাপত্তা বাহিনী।