ব্লগার অভিজিৎ রায় হত্যা মামলায় পাঁচ আসামির মৃত্যুদণ্ড

ব্লগার ও লেখক অভিজিৎ রায় হত্যা মামলায় পাঁচ আসামির মৃত্যুদণ্ডের রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছে রাষ্ট্রপক্ষ। 

পলাতক মেজর সৈয়দ জিয়াউল হক জিয়াসহ পাঁচ আসামিকে মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনাল। অন্য একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছে রাষ্ট্রপক্ষ। তবে এ বিষয়ে উচ্চ আদালতে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন আসামিপক্ষের আইনজীবী।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আব্দল্লাহ আবু  ও গোলাম ছারোয়ার খান জাকির জানান, আসামিদের বিরুদ্ধে অপরাধ প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছে রাষ্ট্রপক্ষ। এজন্য আদালত তাদের সর্বোচ্চ সাজা দিয়েছেন। এ রায়ে তারা সন্তুষ্ট।

এদিকে আসামি পক্ষের আইনজীবী খাইরুল ইসলাম লিটন ও নজরুল ইসলাম জানান, রায়ে তারা অসন্তুষ্ট হয়েছেন। এ রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে যাবেন, আপিল করবেন। আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সঙ্গে আসামিদের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে এটা রাষ্ট্রপক্ষ প্রমাণ করতে ব্যর্থ হয়েছে। আনসারুল্লাহ বাংলাটিমের সঙ্গে আসামিদের কোনো সংশ্লিষ্ট ছিল না। সাক্ষীরা কেউ বলেনি তারা হত্যা করেছে। প্রত্যেক্ষ কোনো সাক্ষী নেই। মামলাটিতে ম্যাজিস্ট্রেট, চিকিৎসকদের সাক্ষী করা হয়নি। শুধু তদন্ত কর্মকর্তার প্রতিবেদনে ওপর ভিত্তি করে সাজা দেওয়া হয়েছে।

আইনজীবীরা বলেন, আসামি শফিউর রহমান ফারাবীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। শুধু তিনি ফেসবুককে এ বিষয়ে লেখালেখি করেছেন বলে। এর বাইরে তিনি কিছু করেননি।